Potpourri

পাবলিক-ই যখন নরখাদক (When mob becomes Cannibal)

Johann de Witt
Johann de Witt (Taken from Facebook Timeline of Manash Paul)

Manas Paul

Agartala, May 31, 2019: রাজনীতি বড় সাংঘাতিক জিনিস । বিশ্বের ইতিহাস জুড়ে তাবড় তাবড় রাজীনীতিবিদদের অনেকেরই শেষ পরিণতি বড়ই ভয়ঙ্কর — মুসোলিনি-র কথা আমরা সবাই মোটামোটি জানি , আর ঘরের কাছে নাজিবুল্লার পরিণতিও বেশ মনে আছে। ম্যাক্সমিলিয়েন রোবস্পিয়ার -এর ঘটনাও আমরা পড়েছি। এদিক দিয়ে সাদ্দাম হোসেইন-এর বরঞ্চ এঁদের চেয়ে অনেক সহজ সমাপ্তি ঘটেছে বলা যায়। কিন্তু প্রধানমন্ত্রীকে মেরে পাবলিক এক্কেবারে খেয়ে নিয়েছে — হ্যা খেয়ে নিয়েছে –এমন ঘটনা আমি মাত্র একটাই জানি। ঘটনাটা বলেই ফেলি — বিশ্বাস করতে কষ্ট হতে পারে , কিন্তু সত্যি বলেই তো পড়েছি। প্রয়োজনে আলেক্সান্ডার দুমা -র ”ব্ল্যাক টিউলিপ” টা পড়ে নিতে পারেন। একটি ছবিও দিচ্ছি প্রথম কমেন্ট এর ঘরে।

ঘটনাটা সে অনেক বছর আগে যদিও, সেই ১৬৭২ সাল। একজন ডাচ প্রধানমন্ত্রী ছিলেন — তখন বলা হত ”গ্র্যান্ড পেনশনারি ”– নাম জোহান দ্য উইট (Johann de Witt) ..খুবই নামি দামি রাজীনীতিক , অভিজাত, লেখা পড়ায় অসম্ভব ভালো, অঙ্কে তো সাংঘাতিক পন্ডিত। উকালতি ও করেছেন একসময়। আর কূটনীতিতে অসাধারণ। তো , এই জোহান দ্য উইট ১৬৫৩ থেকেই হল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী। দেশের অর্থনীতি ভালো হতে শুরু হল , যুদ্ধের ছায়া থাকলেও মোটামোটি শান্তি , সবাই বেশ খুশি। কিন্তু সমস্যা শুরু হল ১৬৭২ থেকে যখন ফ্রান্সের চতুর্দশ লুই হল্যান্ড আক্রমণ করে বেশ কিছু জায়গা দখল করে নিলেন। সে এক অস্থির সময় হল্যান্ডের –বলা হয় ইয়ার অব ডিসাস্টার। হল্যান্ডের পাবলিক -এর মেজাজ গরম , তাঁরা চাইছেন ইংল্যান্ড এর উইলিয়াম -থ্রী কে যেন পরিস্থিতি সামলাতে আনা হয় আর উইট তখন যাকে বলে রাতারাতি প্রিয় দেশনায়ক থেকে দেশের বিশ্বাসঘাতক বলে দুর্নাম কুড়াতে শুরু করলেন। এই ঘোরালো পরিস্থিতি বেশ জটিল, বিশদ বলা এখানে সম্ভব নয়।

যাই হোক , ভাগ্যে যা ছিল, শেষ পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী জোহান এর ভাই কার্নেলিস -কে জেলে ঢুকানো হল। এই সময় -একদিন – ২০ আগস্ট , ১৬৭২- জোহান গেলেন হেগ-এর কাছে গেভেন্জনপোর্ট বলে এক জায়গায় জেলে তাঁর ভাই কার্নেলিস -এর সঙ্গে দেখা করতে। উত্তেজিত পাবলিক খবর পেয়ে জেল ঘেরাও করে ধুন্দুমার কান্ড। শেষ পর্যন্ত জোহান উইট আর তাঁর ভাই কর্নেলিস উইট -দু জনই মব এর মধ্যে পড়ে গেলেন। আর সঙ্গে সঙ্গে শুরু হল ভয়ঙ্কর আক্রমণ। দুই ভাইই স্পট ডেড। কিন্তু এখানেই শেষ হলো না পাবলিক জেল ভেঙে প্রধানমন্ত্রী আর তাঁর ভাইকে কে বের করে এনে গণপিটুনি দিয়ে শুধু মেরেই ফেললো নয়, মেরে কেটে খেয়েই নিলো , হ্যা সত্যি পড়ছেন, পাবলিক তাঁদের প্রধানমন্ত্রীকে কেটে খেয়েই নিলো। বিশ্বাস করা যায় ? অনেকে বলেন ধুর , মেরেছে ঠিক , কিন্তু খায় নি , আবার অনেকে বলছেন খেয়েছে ঠিক … সত্য মিথ্যা যাই হোক একথা তো ঠিক , পাবলিক বড় বিপদজনক সাবজেক্ট …

( আলেক্সান্ডার দুমা লিখছেন : …..And after having mangled, and torn, and completely stripped the two brothers, the mob dragged their naked and bloody bodies to an extemporised gibbet, where amateur executioners hung them up by the feet.
Then came the most dastardly scoundrels of all, who not having dared to strike the living flesh, cut the dead in pieces, and then went about the town selling small slices of the bodies of John and Cornelius at ten sous a piece….)

To Top